March 20, 2023

Shimanterahban24

Online News Paper


Warning: sprintf(): Too few arguments in /home/shimante/public_html/wp-content/themes/newsphere/lib/breadcrumb-trail/inc/breadcrumbs.php on line 254

নিরপেক্ষ দৃষ্টিভঙ্গি নিয়ে ভাবুন, মৌলবাদ কি ও মৌলবাদী কারা?

1 min read

[মুফতি আমিনুর রশিদ গোয়াইনঘাটী]

মূল থেকেই মৌল। সৃষ্টির মূলে রয়েছেন একমাত্র আল্লাহ তা’লা। যখন কোনো কিছুই ছিল না, তখন ছিলেন একমাত্র আল্লাহ তা’লা। আবার যখন কোনো কিছু থাকবে না, তখন একমাত্র আল্লাহ তা’লাই থাকবেন। এটা প্রত্যেক মুসলানেরই বিশ্বাস। সুতরাং আল্লাহ তা’লাই হলেন মূল। আর এ মূলের সাথে যা কিছু সম্পর্কযুক্ত তা-ই হলো মৌল (মৌল -মূলসম্বন্ধীয়, সংসদ বাংলা অভিধান)। বাদ এখানে মত,তত্ত্ব ( theory) অর্থে ব্যবহার করা হয়েছে।(প্রাগুক্ত)
সুতরাং আল্লাহ মূলের সাথে যা কিছু সম্পৃক্ত অর্থাৎ কুরআন-হাদীস ইত্যাদি এ সবই হল তার মৌল। আর এ সবের সমষ্টিকেই বলে মৌলবাদ। অত এব যারা আল্লাহ- রাসুল, কুরআন-হাদীসের মতবাদে বিশ্বাসী তাদেরকেই বলে মূলবাদী বা মৌলবাদী।
আমরা মুসলমান। আমাদের মূল এবং মৌল আছে বিধায় আমরা মৌলবাদী।
যে ধর্মের কোন আগাগোড়া ঠিক নেই, তারা কিভাবে মৌলবাদী হবে? হওয়ার কথাও না। কিন্তু ইসলামের জাত শত্রু ইয়াহুদী-খ্রীষ্টান এবং তাদের দোসর ব্রাম্ম্যণ্যবাদীরা মৌলবাদ শব্দটিকে সন্ত্রাস এবং জঙ্গিবাদ আখ্যা দিয়ে মুসলমানদের ওপর প্রয়োগ করে বোঝাতে চায়, মুসলমানেরাই সন্ত্রাসী এবং জঙ্গিবাদী। আর মুসলমান ঘরে জন্ম নেয়া কিছু ছেলেমেয়ে তাদের পাতা ফাঁদে পা দিয়ে মৌলবাদ বিরোধী স্লোগান দিয়ে মুখে ফেনা তুলছে। তারা দেশের আলেম – ওলামাকে মৌলবাদী আখ্যা দিয়ে সাধারণ মানুষের কাছে হেয় করার অপচেষ্টায় লিপ্ত রয়েছে। মৌলবাদী বলে আলেম-ওলামাকে সন্ত্রাসী, জঙ্গিবাদী বনানোর ন্যায় গর্হিত কর্মকান্ডে তারা লিপ্ত রয়েছে।
শোনে রেখো, ইয়াহুদী- খ্রিষ্টানেরা মৌলবাদকে যে অর্থে ব্যবহার করতে চায়, আমরা কখনো সে অর্থে মৌলবাদী নয়, কোন মুসলমান এ অর্থে মৌলবাদী হতেও পারে না। তবে আমরা আল্লাহ (মূল) এবং তাঁর মৌল তথা কুরআন-সুন্নাহের মতবাদে বিশ্বাসী এ অর্থে অবশ্যই মৌলবাদী, এতে কোন সন্দেহ নেই। এখন তোমাদের অবস্থান অবশ্যই আমাদের জানা দরকার, তোমাদের অবস্থানটা কি? তোমরা কি মূল তথা আল্লাহ এবং তাঁর মৌলে বিশ্বাসী নও। তোমরা কি মৌলবাদ বিরোধী (মৌলবাদের বিপরীত শব্দ)।
মনে রাখতে হবে, বিয়ে -শাদীতে আলেম-ওলামার দরকার পড়ে, মরণের পরেও দরকার পড়ে। সুতরাং তোমাদের অবস্থান আলেম-ওলামাদের নিকট পরিষ্কার হওয়া দরকার মনে করি।
মৌলবাদের তাত্ত্বিক কোনো আলোচনা তোমাদের কাছে থাকলেও আমাদেরকে বলতে পার। আমরা সাদরে গ্রহণ করব। ( এ শব্দটি সাধারণত আমি ব্যবহার করি না। কিন্তুু হাতে গোনা কয়েকজন মানুষকে আলেম সমাজ নিয়ে কটাক্ষ করতে দেখে আলোচনা করতে বাধ্য হলাম। এ বিষয়ে বিস্থারিত জানতে হলে আমার লেখা ‘ মৌলবাদ কি ও মৌলবাদী কারা?’ বইটি পড়া যেতে পারে।)
আল্লাহ তা’লা আমাদেরকে সুমতি দান করুন। আ-মীন।।

লেখক; মুহাদ্দিস- দারুস সালাম লাফনাউট মাদ্রাসা, খতিব- গোয়াইনঘাট কেন্দ্রীয় জামে মসজিদ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Copyright © All rights reserved. | Newsphere by AF themes.