• Tue. Sep 29th, 2020
Top Tags

ইসরাইলি দখলদারিত্বের অবসান ছাড়া মধ্যপ্রাচ্যে শান্তি আসবে না; আব্বাস

ByManaging Editor

Sep 16, 2020

 

ফিলিস্তিনি নেতা মাহমুদ আব্বাস সোমবার বলেছেন, কেবলমাত্র দখল করা ভূখন্ড থেকে ইসরাইল সরে গেলেই মধ্যপ্রাচ্যে শান্তি আসতে পারে।

ইহুদি এ রাষ্ট্রের সাথে ইউএই ও বাহরাইন সম্পর্ক স্বাভাবিক করার চুক্তি স্বাক্ষরের পর তিনি একথা বলেন। খবর এএফপি’র।

ওয়াশিংটনে এ সংক্রান্ত চুক্তি স্বাক্ষরের পর এক বিবৃতিতে আব্বাস বলেন, ‘ইসরাইলি দখলদারিত্বের অবসান না হওয়া পর্যন্ত এ অঞ্চলে শান্তি, নিরাপত্তা ও স্থিতিশীলতা অর্জিত হবে না।’

তিনি বলেন, তাদের এ কর্মকান্ডকে ‘বিশ্বাসঘাতকতা’ হিসেবে অভিহিত করে ফিলিস্তিনিরা এর নিন্দা জানায়।

এদিকে ফিলিস্তিনের ইসলামী প্রতিরোধ আন্দোলন হামাসের পলিট ব্যুরোপ্রধান ও সাবেক প্রধানমন্ত্রী ইসমাইল হানিয়া বলেছেন, ইহুদবিবাদী ইসরাইলের সঙ্গে যেসব আরব দেশের সম্পর্ক স্থাপন করেছে- তারা বিশ্বাসঘাতক।

তাদের ফিলিস্তিনি জনগণ কখনও মেনে নেবে না। এসব বিশ্বাসঘাতকের বিরুদ্ধে ফিলিস্তিনি জনগণ আজ ঐক্যবদ্ধ। খবর মিডল ইস্ট আইয়ের।

ফিলিস্তিনের স্বশাসিত সরকারের প্রেসিডেন্ট মাহমুদ আব্বাসের সঙ্গে এক টেলিফোনালাপে তিনি মঙ্গলবার এ সব কথা বলেন।

ইসমাইল হানিয়া বলেন, ইসরাইলের সঙ্গে কয়েকটি আরব দেশের কলঙ্কজনক চুক্তি স্বাক্ষরের ব্যাপারে ফিলিস্তিনি সংগঠনগুলো অভিন্ন অবস্থান নিয়েছে এবং তারা ফিলিস্তিনির শত্রুদের মোকাবেলায় সব সময় ঐক্যবদ্ধ।

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্টের আবাসিক দফতর হোয়াইট হাউসে বাংলাদেশ সময় মঙ্গলবার রাত ১০টায় ইসরাইলের সঙ্গে চুক্তিতে সই করেন আমিরাতের পররাষ্ট্রমন্ত্রী আবদুল্লাহ বিন জায়েদ আলে নাহিয়ান এবং বাহরাইনের পররাষ্ট্রমন্ত্রী আবদুল লতিফ বিন রাশেদ আল জিয়ানি।

মুসলমানদের প্রথম কেবলা মসজিদুল আকসার দখলদার ইসরাইলের পক্ষে চুক্তিতে সই করেছেন দখলদার দেশটির প্রধানমন্ত্রী বেনিয়ামিন নেতানিয়াহু।

ফিলিস্তিনের সব দল ও সংগঠন এবং আপামর জনসাধারণের প্রতিবাদ উপেক্ষা করে চুক্তিতে সই করেছে এ দুই আরব মুসলিম দেশ।

এ নিয়ে এ পর্যন্ত চারটি আরব দেশ দখলদার ইসরাইলের সঙ্গে আনুষ্ঠানিক সম্পর্ক স্থাপন করল। বিশ্বের বিভিন্ন মুসলিম দেশ ও সাধারণ মুসলমানরা এ চুক্তির প্রতিবাদ জানিয়েছেন এবং বিক্ষোভ করেছেন।

ফিলিস্তিনিরা বলেছেন, আরব আমিরাত ও বাহরাইন ফিলিস্তিনিদের পিঠে ছুরিকাঘাত করেছে। ইসলামবিরোধী শক্তির স্বার্থ রক্ষার্থে এটি করা হয়েছে বলে তারা মন্তব্য করেছেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *