Main Menu

পশ্চিম ইলিশার ভন্ড কবিরাজির শিকার সহস্র পরিবার

মিজানুর রহমান খোকন, ভোলা প্রতিনিধি।।

ভোলা সদর উপজেলার পশ্চিম ইলিশা ইউনিয়নের শ্যামপুর গ্রামের ভন্ড কবিরাজ প্রতারক হাফিজুর রহমানের অপচিকিৎসা ও প্রতারণার শিকার হয়েছে বিভিন্ন জায়গা থেকে আশা সহস্র পরিবার।

ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারের দাবি, কথিত কবিরাজ হাফিজুর রহমান সকল ধরনের চিকিৎসা করে দ্রুত সময়ের মধ্যে রোগমুক্ত করতে পারেন যেকোনো ব্যক্তিকে।
তবে কবিরাজের এমন প্রচারণার ফাঁদে পড়ে সহস্র পরিবার চিকিৎসা নিতে আসলেও হাজার হাজার টাকা দিয়েও রোগমুক্ত হতে পারেননি।

এমন অভিযোগের ভিত্তিতে রবিবার সকালে গণমাধ্যমকর্মী পরিচয় না দিয়ে তার বাসায় চিকিৎসার জন্য গেলে তিনি জানান, ১০ মাসের মধ্যে নিঃসন্তান দম্পতিদের সন্তান জন্মগ্রহণ করে দিতে পারবেন তিনি। তবে এর বিনিময়ে তাকে দিতে হবে ১০ থেকে ১২ হাজার টাকা। এছাড়া কোনো যুবতী মেয়ের বিয়ে না হলে কবিরাজি চিকিৎসার মাধ্যমে ঐসকল যুবতী মেয়েদের বিয়েরও ব্যবস্থা করে দিতে পারেন তিনি।

এছাড়াও তিনি টাকি মাছ রুই মাছ চিংড়ি মাছের গলায় তাবিজ দিয়ে সেলাই করে সেই মাছ নদীতে ছেড়ে দিয়ে শত্রুকে পাগল করে দিতে পারেন বলে জানা যায়।

ক্ষতিগ্রস্ত রাজু নামে এক যুবক জানান, পাঁচ বছর ধরে তাদের কোনো সন্তান না হওয়ায় এক ব্যবসায়ির মাধ্যমে এই প্রতারকের ঠিকানা বরাবর চিকিৎসা নিতে আসেন ওই দম্পতি। তবে ৯ হাজার টাকা ব্যয় করে দীর্ঘ ৪ মাস চিকিৎসা চালিয়েও তিনি এখনো কোনো সন্তান জন্ম দিতে পারেননি। ক্ষতিগ্রস্ত ওই দম্পতি অভিযোগ করে বলেন, সাধারণ মানুষকে মিথ্যা ও ভিত্তিহীন কথা বলে প্রতারণার মাধ্যমে প্রতিদিন হাজার হাজার টাকা হাতিয়ে নিচ্ছেন সেই ভন্ড প্রতারক কবিরাজ হাফিজুর রহমান।

এসকল অভিযোগের বিষয়ে জানতে চাইলে গণমাধ্যমকর্মী পরিচয় পেয়ে অন্য কথার প্রসঙ্গ টেনে মুঠোফোনের সংযোগ বিচ্ছিন্ন করে দেন।






Related News

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *