Main Menu

কুমিল্লায় নাঙ্গলকোটে চাচার সেফটি ট্যাঙ্ক থেকে ভাতিজার লাশ উদ্ধার

রবিউল হো: সবুজ, কুমিল্লা প্রতিনিধি।

কুমিল্লা জেলা নাঙ্গলকোটে উপজেলার আদ্রা উত্তর ইউনিয়ন দক্ষিণ শাকতলি গ্রামে তিনদিন নিখুঁজের পর চাচার সেফটি ট্যাঙ্ক থেকে রেজাউল হল (৩০) নামে এক ব্যক্তির লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। শনিবার (৩০মে) রাত ৯ টার দিকে নাঙ্গলকোটে উপজেলার আদ্রা উত্তর ইউনিয়ন দক্ষিণ শাকতলি এলাকার থেকে লাশটি উদ্ধার করা হয়। নিহত নাঙ্গলকোটে উপজেলার উওর ইউনিয়নে আদ্রা দক্ষিণ শাকতলি হুমায়ুন কবিরের একমাএ ছেলে।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, নিহত রেজাউল হক একজন বিদেশ ফেরত প্রবাসী । রেজাউল হক সবসময় বাড়িতে থাকে। তার স্ত্রী গর্ভবতী তাই বাবার বাড়িতে থাকেন। ঘটনার দিন সন্ধা থেকে তার সন্ধান না মিললে সবাই মিলে তাকে খুজঁতে শুরু করেন। এবং থানাতে সাধারন ডাইরি করা হয়।এরই এক পর্যায়ে নিখোঁজের তিনদিন পর সন্ধা বাড়ির নিজ চাচার সেফটি ট্যাঙ্ক থেকে ভাতিজার বস্তাবন্দি লাশ সন্ধান পাওয়া যায়। তখন স্থানীয় প্রতিনিধি পুলিশকে বিষয়টি তাৎক্ষণিকভাবে জানান। পুলিশ এসে লাশটি উদ্ধার করে।এরমধ্য বাহরাইন প্রবাসী ফিরত চাচা কৌশলে বাছির পালিয়ে যায়। এবং রেজাউল হকের চাচী মুরশিদাকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আটক করে পুলিশ। এঘটনায় একালায় চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়।

স্থানীয় ইব্রাহিম নামে এক ব্যাক্তি জানান, আমি ঘটনার তিনদিন আগের সর্বশেষ তাকে দেখেছি। ঘটনার তিনদিন আগে আমাদের বাড়ির ভাত খেয়ে চলে যায় নিজবাড়ী উদ্দেশ্যে। আর আজ তিনদিন পর জানতে পারি তার লাশ পাওয়া গেছে।

নিহত রেজাউল হক স্ত্রী রামুনা বলেন,আমি অসুস্থ থাকায় আমি মায়ের কাছে থাকি। তবে প্রতিদিন কয়েকবার এই রেজাউল হক বাড়িতে আসে। ঘটনার দিন সন্ধা থেকে আমার স্বামীকে কোথাও দেখতে না পেয়ে স্থানীয়দের সহযোগিতায় খুজঁতে শুরু করে আমার শশুড় । খোঁজাখুঁজির এক পর্যায়ে তিনদিন পর আজ নিজ চাচার সেফটি ট্যাঙ্ক থেকে বস্তাবন্দি লাশ উদ্ধার হয়। এবং চাচা-চাচী তাকে হত্যা করে লাশ সেফটি ট্যাঙ্ক ফেলে দেয়। আমি এ হত্যা কান্ডের বিচার চাই সরকারে কাছে।

এবিষয়ে নাঙ্গলকোট থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) বখতিয়ার উদ্দিন চৌধুরী বলেন, রেজাউল হল নামে এক ব্যক্তির লাশ সেফটি ট্যাঙ্ক উদ্ধার করি। রবিবার ময়নাতদন্তের জন্য কুমিল্লা মেডিকেলে হাসপাতালে পাঠানো হবে।এবং চাচীকে প্রাথমিকভাবে জিজ্ঞাসা করলে হত্যার কথা স্বীকার করে।আর তদন্ত রিপোর্ট পেলে পরবর্তী আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।






Related News

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *