গোয়াইনঘাটে দফায় দফায় কালবৈশাখী ঝড়; কয়েকশত ঘরবাড়ি ক্ষতিগ্রস্থ, বজ্রপাতে একজনের প্রাণহানি - Shimanterahban24
June 9, 2023

Shimanterahban24

Online News Paper


Warning: sprintf(): Too few arguments in /home/shimante/public_html/wp-content/themes/newsphere/lib/breadcrumb-trail/inc/breadcrumbs.php on line 254

গোয়াইনঘাটে দফায় দফায় কালবৈশাখী ঝড়; কয়েকশত ঘরবাড়ি ক্ষতিগ্রস্থ, বজ্রপাতে একজনের প্রাণহানি

1 min read
গোয়াইনঘাট
আহমদ উল কবির সাজু :: গত ৮ এপ্রিল থেকে গোয়াইনঘাটে  চার দফায় কালবৈশাখীর ঝড়ে কয়েকশত কাঁচা ঘরবাড়ি ক্ষতিগ্রস্থ হয়েছে। অনেকের ঠাই হয়েছে খোলা আকাশের  নীচে।ক্ষতিগ্রস্থরা বেশীর ভাগ দিন মজুর ও গরীব লোকজন। বজ্রপাতে প্রাণহানী ঘটেছে একজনের।  একদিকে করোনার আতঙ্ক অন্যদিকে প্রতিদিন কালবৈশাখীর ঝড় যেন মরার উপর খড়ার ঘাঁ হয়ে দাঁড়িয়েছে। লন্ড বন্ড করে দিয়েছে  বিদ্যুৎ ব্যাবস্থা।
৮ এপ্রিল  থেকে ১৬ এপ্রিল  মোট চারদফায় কালবৈশাখী  আঘাত হানে গোয়াইনঘাটে। বৃহস্পতিবার  দিবাগত রাতের ঝড় ছিল মারাত্মক শক্তিশালী। রাত দেড়টা থেকে বিশ মিনিট  স্থায়ী  ঝড়ে উপজেলার  বভিন্ন গ্রামে তিন শতাধিক  ঘরবাড়ির  আংশিক ও সম্পূর্ণ  ক্ষতি সাধণ করে।বারহাল বাজারের  দায়িত্বশীল  ব্যাবসায়ী ছালে রাজা বলেন ধর্মগ্রাম,খলাগ্রাম, পাচঁসেউতি গ্রামে ৬/৭টি ঘর সম্পূর্ণ  বিধ্বস্ত  হয়েছে, দিন  মজুর অসহায় পরিবারগুলোর ঠাই এখন খোলা আকাশের  নীচে।এলাকায় আরও অনক ঘরবাড়ি  হয়েছে  ক্ষতিগ্রস্থ।রুস্তমপুর ইউপি চেয়ারম্যান  শাহাবউদ্দিন বলেন কেয়ক দফা ঝড়ে ৭০টি ঘরবাডি ক্ষতিগ্রস্থ  হয়েছে এর মধ্যে কুড়িটি সম্পূর্ণ বিধ্বস্ত হয়েছে, বোরো ফসল এক তৃতীয়াংশ বিনষ্ট হয়েছে শিলাবৃষ্টি ও ঝড়ে। উপজেলায় প্রায় পাঁচশত ঘরবাড়ি  ক্ষতিগ্রস্হ হয়েছে  এমন কথাই বলছেন সাধারণ লোকজন। শুক্রবার সকাল ১১টায় কাপাউরা বড়বন্দ গ্রামের সাইদ আলী(৫০) বাড়ির  পাশে গরু আনতে গেলে বজ্রপাতে নিহত হন। তিনি মৃত মোখসেদ আলী ফকিরের ছেলে। বাদ আসর কাপাউরা মসজিদে  তার জানাযা শেষে দাফন সম্পন্ন হয়।
ঝড়ের কারণে বিপর্যস্থ হচ্ছে বিদ্যুৎ সরবরাহ। অর্ধ শতাধিক  স্থানে ছিড়ে যায় বিদ্যুৎ লাইন,দেড়হাজার স্থানে লাইনের উপর পড়ে বড় বড় গাছ,অর্ধশতাধিক  মিটার ভেংগে চুরমার হয়েছে তাহা সত্বেও  সকাল  সাড়ে ৯টায় উপজেলা  সদরে বিদ্যিৎসরবরাহ, দুপুর সাড়ে ১২টার মধ্যে সকল মেইন লাইন চালু করা হয়েছে বলে জানান এ্যারিয়া অফিস  ইনাচার্জ মোঃ সিদ্দিক।  তিনি সন্ধ্যা ৭টায় জানান কয়েকটি  শাখা লাইন বন্ধ রয়েছে  কাজ চলছে,আৃমরা দূর্যোগপূর্ণ অবস্থায়ও তাৎক্ষণিক  বিদ্যুৎ সরবরাহ করতে প্রানান্ত চেষ্টা রাখি। দূর্যোগের  বিষয়ে জানতে উপজেলা ত্রাণ ও দূর্যোগ কর্ম কর্তার সাথে মুঠোফোনে  বার বার চেষ্টা করলেও  ফোন রিসিভ  হয়নি। উপজেলা চেয়ারম্যান ফারুক আহমদ  জানান বার বার ঝড়ে কয়েকশত  ঘরবাড়ি  ক্ষতিগ্রস্থহয়েছে, আমি অনেক বাড়ি পরিদর্শন  করেছি। কালও বের হবো। এলাকার প্রবীন অনেই বলছেন এত মারাত্মক ঝড় ইতি পূর্বে হয়নি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Copyright © All rights reserved. | Newsphere by AF themes.