Main Menu

করোনায় মৃত মুসলমানের লাশ শরিয়তসম্মত পন্থায় দাফন করতে হবে; আল্লামা কাসেমী

নিজস্ব প্রতিনিধি, ঢাকা :: জমিয়তে উলামায়ে ইসলাম বাংলাদেশ’র মহাসচিব আল্লামা নূর হোসাইন কাসেমী বলেছেন, করোনাভাইরাস আক্রান্ত হয়ে মৃত্যুবরণকারী মুসলমানের লাশ শরীয়তসম্মত পন্থায় দাফন করতে হবে। করোনায় মৃত লাশ অতিরিক্ত সংবেদনশীল বিধায় জানাযা ও দাফন প্রক্রিয়া যথাসম্ভব দ্রুত শেষ করে নিতে হবে। জানাযায় অতিরিক্ত লোক সমাগমের জন্য বিলম্বিত না করে স্বাস্থ্যবিভাগের নিয়ম অনুসরণ করে সবর করাই উত্তম হবে।

আজ (২৪ মার্চ) মঙ্গলবার এক বিবৃতিতে তিনি আরো বলেন, করোনা রোগে মৃতব্যক্তির লাশ নিরাপদভাবে দাফন বিষয়ে গত ১৫ মার্চ বাংলাদেশ সরকার যে নির্দেশনা বা স্টান্ডার্ড অপারেটিং প্রসেজিওর (এসওপি) জারি করেছে, তাতে শরীয়তের কোন বাধা নেই বলেই প্রতিয়মান। তবে লাশ গোসল দেওয়া সম্ভব না হলে অবশ্যই তায়াম্মুম দিতে হবে এবং কাফনে পুরুষের জন্য তিনটি এবং নারীর জন্য পাঁচটি নির্ধারিত কাপড় পরাতে হবে। তাছাড়া এই নির্দেশনায় রোগির ঘনিষ্ঠ আত্মীয়দের জন্য তাদের প্রিয়জনের লাশের চেহারা শেষবারের মতো দেখার সুযোগ রাখা হয়নি। প্রশাসনের প্রতি অনুরোধ করছি, মৃতব্যক্তির সন্তান ও স্বাম-স্ত্রীর মতো অতি ঘনিষ্ঠ কিছু আত্মীয়ের আবেগকে বিবেচনায় নিয়ে স্বাস্থ্য সুরক্ষার বিধি অনুসরণ করে শেষ বারের মতো মৃতের চেহারা দেখানোর একটা সুযোগ রাখা গেলে তাদের আজীবনের আক্ষেপটা লাঘব হতো।

বিবৃতিতে আল্লামা নূর হোসাইন কাসেমী আরো বলেন, করোনাভাইরাস মহামারিতে আজ সারাবিশে^র মানুষ শংকিত। নিঃসন্দেহে এটা সমগ্র মানবজাতির জন্য বড় এক বিপদ। কুরআন-হাদীসের ভাষ্যমতে মানুষের ব্যক্তিগত ও সমষ্টিগত পাপ এবং অপরাধমূলক কর্মকা- ব্যাপকতর হয়ে পড়লে এ ধরনের মহামারির বিপদ নেমে আসে। সুতরাং ব্যক্তিগত ও জাতীয়ভাবে পাপ ও গুনাহ থেকে তাওবা করে সবসময় এ দোয়া করতে হবে যে, হে আল্লাহ সমগ্র মানবজাতির উপর দয়া ও অনুগ্রহ করুন। সমগ্র মুসলিম উম্মাহকে হেফাজত করুন। আমাদেরকে হিদায়াতের উপর চলার তাওফীক দান করুন। আমাদের দেশ ও জাতিকে রক্ষা করুন। দ্বীনি মাদ্রাসা ও মসজিদসমূহকে সকল প্রতিকূলতা থেকে রক্ষা করুন।

জমিয়ত মহাসচিব সর্বসাধারণকে ভীত ও অস্থির না হয়ে যথাযথভাবে স্বাস্থ্যবিধি মেনে জনসমাগম এড়িয়ে নিবৃত্তে সবসময় অজুর হালতে থেকে কুরআন তিলাওয়াত ও ইবাদত-বন্দেগীতে মশগুল থাকার আহ্বান জানান।






Related News

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *