Main Menu

গোয়াইনঘাট সীমান্তে ভারতীয় অবৈধ গরু বন্ধ হচ্ছেনা কেন?

জুবায়ের আহমদ :: করোনাভাইরাস ছড়ানো ঠেকাতে স্কুল,কলেজ,মাদ্রাসা সহ সকল শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ ঘোষণা করেছে , প্রবাসী সোনার ছেলেদের আটকানো হচ্ছে, কিন্তু অবৈধ পথে ভারত থেকে আসা গরু বন্ধ হচ্ছেনা..!!!

২১.০২.২০২০ ইং তারিখে প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয় গনপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকার, করোনাভাইরাস এর বিরুদ্ধে একটি লিফলেট
প্রেরণ করেন, উক্ত লিফলেটে সতর্কতা অবলম্বনের জন্য আছে যে, পশু পাখি বা গবাদি পশুর মাধ্যমে করোনাভাইরাস ছড়ায়।

পুলিশ প্রশাসন বিজিবি প্রচারনা চালাচ্ছে লিফলেট বিতরন করছে সতর্ক থাকতে।বলা হচ্ছে গবাদি পশু পাখী তেকে করোনাভাইরাস ছডায়।

কিন্তু গোয়াইনঘাটের সীমান্ত রক্ষীদের সামনে দিয়ে আসা ভারতীয় হাজার হাজার গরুর স্বাস্থ্য পরীক্ষা করা হচ্ছেনা।
ভারত হতে সোনারহাট, বিছনাকান্দি, দমদমা বিজিবি ক্যাম্প দিয়ে চোরাই পথে প্রতিদিন দিবা-রাত্রি ভারতীয়
গবাদি পশু গোয়াইনঘাট উপজেলার হাদারপার, পিরের বাজার স্থান হইতে গাড়ীযোগে বাংলাদেশের বিভিন্ন জেলায় যাচ্ছে এই ভারতীয় অবৈধ গরু।
এতে সারা বাংলাদেশে ছড়াতে পারে মহামারি করোনাভাইরাস।
পাশাপাশি লক্ষ করে দেখা যায়, ভারতীয় অবৈধ গরু বাহী গাড়ীর ড্রাইভারগুলো বেপরোয়া, উন্মাদ, মাতাল হয়ে রাস্তায় গাড়ী চালানোর ফলে সাধারণ যাত্রীবাহী গাড়ি এবং সাধারণ মানুষের রাস্তায় চলাচল করতে বিগ্ন ঘটে।এমনকি গত ১০ মার্চ ২০২০ ইং পুকাশ স্কুল এন্ড কলেজ এর সামনে ভারতীয় অবৈধ গরুবাহী ট্রাক ড্রাইভার বেপরোয়া হয়ে গাড়ি চালালে এতে যাত্রীবাহী সিএনজি কে ধাক্কা দেয়ার ফলে মর্মান্তিক ভাবে আহত হন সিএনজি চালক হস পাচ যাত্রী।
করোনাভাইরাস ছড়ানো ঠেকাতে এবং বিরামহীন এই গোয়াইনঘাট-সিলেট রাস্তাটি নিরাপদ রাখতে গোয়াইনঘাট উপজেলা ও গোয়াইনঘাট থানা প্রশাসনের সু-দৃষ্টি কামনা করছে গোয়াইনঘাটের জনসাধারণ।






Related News

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *