January 30, 2023

Shimanterahban24

Online News Paper


Warning: sprintf(): Too few arguments in /home/shimante/public_html/wp-content/themes/newsphere/lib/breadcrumb-trail/inc/breadcrumbs.php on line 254

ইংরেজি, বাংলা ও হিজরি নববর্ষ উদযাপন করা সম্পূর্ণরূপে হারাম

1 min read

[আবু তালহা তোফায়েল]

 ইংরেজি নববর্ষ থার্টিফাস্ট নাইট, বাংলা নববর্ষ পহেলা বৈশাখ কিংবা হিজরি নববর্ষ পালন করা হারাম। কেননা এ দিবসগুলো উদযাপন করার মাধ্যমে মূলত কাফিরদের অনুকরণ ও সাদৃশ্য গ্রহণ করা হয়। আর নিঃসন্দেহে মুসলিমদের জন্য কাফিরদের অনুকরণ করা হারাম। পৃথিবীতে ইসলাম আগমনের পর ইসলাম বহির্ভূত সকল উৎসবকে বাতিল ঘোষণা করা হয়েছে এবং নতুনভাবে উৎসবের জন্য ঈদুল ফিতর ও ঈদুল আযহাকে নির্ধারণ করা হয়েছে। সেই সাথে কাফিরদের অনুসরণে যাবতীয় উৎসব পালনের পথকে বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে।

ইবনে কাসির রহিমাহুল্লাহ বলেনঃ কোন মুসলিমের সুযোগ নেই কাফিরদের সামঞ্জস্য গ্রহণ করা, না তাদের ধর্মীয় উৎসবে, না মৌসুমি উৎসবে, না তাদের কোন ইবাদতে। কারণ আল্লাহ তা’আলা এ উম্মাহকে সর্বশেষ নবী দ্বারা সম্মানিত করেছেন, যাকে পরিপূর্ণ ও সর্বব্যাপী দ্বীন দেওয়া হয়েছে। যদি মূসা ইবন ইমরান জীবিত থাকতেন, যার উপর তাওরাত নাযিল হয়েছে কিংবা ঈসা ইবন মারইয়াম জীবিত থাকতেন, যার উপর ইঞ্জিল নাযিল হয়েছে তারাও ইসলামের অনুসারী হতেন। তাঁরা সহ সকল নবী থাকলেও কারো পক্ষে পরিপূর্ণ ও সম্মানিত শরীয়তের বাইরে যাওয়ার সুযোগ থাকতো না। অতএব মহান নবীর আদর্শ ত্যাগ করে আমাদের পক্ষে কিভাবে সম্ভব এমন জাতির অনুসরণ করা, যারা নিজেরা পথভ্রষ্ট, মানুষকে পথভ্রষ্টকারী ও সঠিক দ্বীন থেকে বিচ্যুত। তারা বিকৃতি, পরিবর্তন ও অপব্যাখ্যা করে আসমানি ওহীর কোন বৈশিষ্ট্য তাদের দ্বীনে অবশিষ্ট রাখে নি। দ্বিতীয়ত তাদের ধর্ম রহিত। রহিত ধর্মের অনুসরণ করা হারাম, তার উপর যত আমল করা হোক আল্লাহ তা গ্রহণ করবেন না। তাদের ধর্ম ও মানব রচিত ধর্মের মধ্যে কোন পার্থক্য নেই। আল্লাহ যাকে চান সঠিক পথের সন্ধান দান করেন। [আল বিদায়া ওয়ান নিহায়া, ২/১৪২]

থার্টি-ফাস্ট নাইট হচ্ছে ইহুদি ও খ্রিস্টান সম্প্রদায়ের এক অভিশপ্ত ও গোমরাহী কার্যক্রম। এই উৎসবের নামে তারা বেশ্যা নারীদের দিয়ে দেহো ব্যবসা করে, সাথে সাথে এই উৎসবের নামে পর্দার আঁচলে থাকা মহিলাদেরকে টেনে হেচড়ে পুরুষদের মিলনমেলায় ফেলে দেয়। তাই তাদের অনুসরণ ও অনুকরণ করা সম্পূর্ণরূপে হারাম।

নববর্ষ থার্টি-ফাস্ট নাইট উদযাপন করে আমরা যাদেরকে বন্ধুরূপে গ্রহণ করছি তারা প্রকৃতপক্ষে আমাদের শত্রু। তারা কখনো আমাদের বন্ধু হবে না, যে পর্যন্ত না আমরা আমাদের দ্বীন ত্যাগ করে তাদের ধর্মের অনুসরণ না করি। তারা আমাদের দ্বীন ও নবীকে নিয়ে উপহাস করে। আল্লাহ তা’আলা বলেনঃ হে মুমিনগণ, তোমাদের পূর্বে যাদেরকে কিতাব দেওয়া হয়েছে তাদের মধ্যে যারা তোমাদের ধর্মকে হাসি-তামাসা ও ক্রীড়ার বস্তুরূপে গ্রহণ করে, তাদেরকে ও অবিশ্বাসীদেরকে তোমরা বন্ধুরূপে গ্রহণ করো না। যদি তোমরা বিশ্বাসী হও, তাহলে আল্লাহকে ভয় করো। [সূরা মায়িদা, আয়াত ৫৭]।

লেখক: আবু তালহা তোফায়েল
শিক্ষার্থী ও সাংবাদিক

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Copyright © All rights reserved. | Newsphere by AF themes.